fbpx
You are here
Home > ফুটবল > হেসুসের পেনাল্টি মিসে নকআউট অপেক্ষা বাড়লো সিটির!

হেসুসের পেনাল্টি মিসে নকআউট অপেক্ষা বাড়লো সিটির!

হেসুসের পেনাল্টি মিসে নকআউট অপেক্ষা বাড়লো সিটির!

চ্যাম্পিয়নস লিগে গতকাল মুখোমুখি হয়েছিল আটালান্টা এবং ম্যানচেস্টার সিটি। এই ম্যাচ জিতলেই রাউন্ড অফ সিক্সটিন নিশ্চিত হতো গার্দিওলার শিষ্যদের। কিন্তু সিটির সেই স্বপ্নে জল ঢেলে দিয়েছে আটালান্টা। ১-১ গোলে রুখে দিয়েছে সিটির জয়। তবে সিটি সমর্থকেরা দুষতে পারেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড গ্যাব্রিয়াল হেসুসকেও। কেননা তিনি পেনাল্টি মিস না করলে স্কোরলাইনটা ২-১ ও হতে পারতো। অবশ্য এখন সিটির নকআউট পর্ব নিশ্চিত করতে প্রয়োজন আর মাত্র ১ পয়েন্ট।

প্রতিপক্ষের মাঠে শুরুটা দারুণ করেছিল সিটি। ম্যাচের ৭ম মিনিটেই লিড পেয়েছিল সিটিজেনরা। গ্যাব্রিয়াল হেসুসের দুর্দান্ত এক পাস থেকে বল জালে জড়ান রাহিম স্টার্লিং। এর পরে একের পর এক আক্রমণ চালিয়ে গিয়েছে সিটি। প্রথমার্ধে মূলত মাঠের এক পাশেই বল ঘুরা-ফিরা করছিল। এর মাঝে ব্যবধান দ্বিগুণ করার সুযোগ পায় সিটি। ম্যাচের ৪৩তম মিনিটে পেনাল্টি পায় সিটিজেনরা। কিন্তু স্পটকিক থেকে বল বারের বাইরে দিয়ে মেরে সেই সুযোগ নষ্ট করেন আগের গোলে অ্যাসিস্ট করা ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড হেসুস।

দ্বিতীয়ার্ধ শুরুর মিনিট চারেকের মধ্যেই সমতায় ফেরে আটালান্টা। ম্যাচের ৪৯তম মিনিটে মারিও পাসালিচের হেডে বল জালে জড়ালে স্কোরলাইন ১-১ করে স্বাগতিকরা। দ্বিতীয়ার্ধে বদলে যাওয়া আটালান্টা বেশ ভুগিয়েছে গার্দিওলার শিষ্যদের। মাঝে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন সিটি গোলরক্ষক ক্লদিও ব্রাভো। ম্যাচের ৮১তম মিনিটে আটালান্টার জোসেফ ইলচিচকে বক্সের বাইরে এসে ফাউল করলে ব্রাভোকে লাল কার্ড দেখান রেফারি।

চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসে প্রথম বদলি গোলরক্ষক হিসেবে লাল কার্ড দেখার রেকর্ড গড়েছেন ব্রাভো। পরে তার বদলি হিসেবে গোলরক্ষকের ভূমিকা পালন করেছেন ডিফেন্ডার কাইল ওয়াকার। তবে ওয়াকারকে তেমন একটা ভুগতে হয়নি। বাকি সময়টা বল নিজেদের দখলে রেখে ওয়াকারকে চাপমুক্ত রেখেছেন গার্দিওলার শিষ্যরা। শেষ পর্যন্ত ঐ ১-১ গোলের সমতা নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছে সিটিজেনদের।

ছবিঃ ইন্টারনেট থেকে সংগৃহীত

উপরে