fbpx
You are here
Home > ফুটবল > চতুর্থবারের মতো বিশ্বকাপ জিতলো যুক্তরাষ্ট্র!

চতুর্থবারের মতো বিশ্বকাপ জিতলো যুক্তরাষ্ট্র!

চতুর্থবারের মতো বিশ্বকাপ জিতলো যুক্তরাষ্ট্র!

মেয়েদের ফুটবলে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হলো যুক্তরাষ্ট্র। এ নিয়ে মোট চারবার বিশ্বকাপ শিরোপা ঘরে তুললো তারা। নেদারল্যান্ডসকে ২-০ গোলে হারিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মত এই কীর্তি গড়লো জিল এলিসের শীষ্যরা। এই জয় দিয়ে একমাত্র কোচ হিসেবে মেয়েদের ফুটবলে দু’বার বিশ্বকাপ জিতলেন জিল এলিস।

এবারের বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি বয়সী দল নিয়ে এসেছিলেন জিল এলিস। আর এই অভিজ্ঞতাকেই বিশ্বকাপ জয়ের কারিগর হিসেবে মানছেন ফুটবল বোদ্ধারা। গতি ও সহনশক্তির দিক থেকে নেদারল্যান্ড এগিয়ে থাকলেও তারা পিছিয়ে পড়ে যুক্তরাষ্ট্রের অভিজ্ঞতা ও ট্যাকটিক্সের কাছে। আক্রমণের সাথে সাথে দুই দলের রক্ষণভাগও ছিল দুর্দান্ত। প্রথমার্ধের শুরু থেকে দু’দলই চেষ্টা চালিয়ে যান প্রতিপক্ষ দলের গোলমুখ খোলার। কিন্তু দারুণ রক্ষণে দু’দলই ব্যর্থ হয় লিড নিতে। শেষ পর্যন্ত গোলশূণ্য থেকে প্রথমার্ধ শেষ করে দু’দল।

যেই রক্ষণ প্রথমার্ধে গোলমুখ পাহাড়া দিয়ে রেখেছিল, সেই রক্ষণের ভুলেই দ্বিতীয়ার্ধে গোল খেয়ে বসে নেদারল্যান্ড। ম্যাচের বয়স তখন ৬০ মিনিট। ডিবক্সের ভেতর থেকে বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের অ্যালেক্স মরগানের মুখে লাথি মেরে বসেন ডাচ ডিফেন্ডার ভান ডে গ্রাট। প্রথমে সাড়া না দিলেও পরে ‘ভিএআর’-এর সাহায্য নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষে পেনাল্টির বাঁশি বাঁজান রেফারি। স্পট কিক থেকে দলকে লিড এনে দেন যুক্তরাষ্ট্রের অধিনায়ক রাপিনো। ৮ মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন রোজ লাভেল। মেউইসের কাছ থেকে পাওয়া বল নিয়ে লাভেল প্রায় একক ভাবে পরাস্ত করেন প্রতিপক্ষ গোলরক্ষককে। আর কোন গোলের দেখা না পাওয়ায় শেষ অবধি ২-০ গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে যুক্তরাষ্ট্রের মেয়েরা।

টুর্নামেন্টে মরগানের সমান ৬ গোল করেও কম ম্যাচ খেলায় গোল্ডেন বলের পুরষ্কার পান রাপিনো। এছাড়া সিলভার বল জেতেন মরগান এবং ফাইনাল ম্যাচে গোল করায় লাভেলের হাতে ওঠে ব্রোঞ্জ বলের পুরষ্কার। রানার্স আপ হওয়া নেদারল্যান্ডসের গোলরক্ষক ভিনিনদাল জেতেন গোল্ডেন গ্লাভসের পুরষ্কার।

ছবিঃ ইন্টারনেট থেকে সংগৃহীত

উপরে